রাত ৯:১৯, শুক্রবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১লা মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

সরকার ৩২ টাকা কেজিতে চাল ও ২৩ টাকায় ধান কিনবে

সরকার ৩২ টাকা কেজিতে চাল ও ২৩ টাকায় ধান কিনবে

সরকার ৩২ টাকা কেজিতে চাল ও ২৩ টাকায় ধান কিনবে

স্টাফ রিপোর্টার/ভোরের বার্তা:

বছর কৃষকদের কাছ থেকে প্রতি কেজি ধান ২৩ টাকা দরে ও চাল প্রতি কেজি ৩২ টাকা দরে কিনবে সরকার। আগামী ৫ই মে থেকে ৩১শে আগস্ট সরকারিভাবে এই ধান ও চাল সংগ্রহ করা হবে। গতকাল সচিবালয়ে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাত লাখ টন ধান ও ছয় লাখ টন চাল কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে খাদ্য পরিধারণ ও মূল্যায়ন কমিটি। এতে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম সভাপতিত্ব করেন। বৈঠকে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ও খাদ্য প্রতিমন্ত্রী নূরুজ্জামান আহমেদসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে গত বছর সরকার ১ লাখ টন ধান ও ১০ লাখ টন চাল কিনেছিল। ওই বছর ধান ২২ টাকা ও চাল ৩২ টাকা দরে কেনা হয়। তাই কৃষক পর্যায়ে ধানের দাম এবার কেজিতে এক টাকা বেড়েছে। বিপরীতে চাল কিনবে গতবারের সমান দামে। খাদ্য পরিকল্পনা ও পরিধারণ কমিটির বৈঠকের পর খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, এবার মোট ১৩ লাখ টন ধান ও চাল কেনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৭ লাখ টন হবে ধান, বাকিটা চাল। তিনি বলেন, ধান-চাল সংগ্রহে এবার বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনতে চাই। কৃষকদের সরাসরি প্রণোদনা দিতে এবং ফরিয়াদের দৌরাত্ম্য কমাতে বেশি করে ধান সংগ্রহ করা হবে। তিনি বলেন, গত মৌসুমে এক লাখ টন বোরো ধান কেনা হলেও এবার কৃষকের কথা মাথায় রেখে ৭ লাখ টন ধান কেনা হবে। এবার সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ করা হবে। অন্যদিকে চাল কেনা হবে মিল মালিকদের কাছ থেকে। খাদ্যমন্ত্রী বলেন, এ বছর প্রতি কেজি ধানের উৎপাদন খরচ পড়েছে ২০ টাকা ৭০ পয়সা। আর এক কেজি চালের উৎপাদন খরচ ২৯ টাকা। সোমবার (কাল) খাদ্য ভবনে বৈঠক করে চলতি মৌসুমের ধান ও চাল সংগ্রহের বিষয়ে নতুন নির্দেশনা দেয়া হবে জানিয়ে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, এবার যে নির্দেশনা থাকবে, তাতে আমাদের প্রশংসাই করবেন বলে আমরা মনে করছি। ১৩ লাখ টন নতুন খাদ্যশস্য কেনার পর সংরক্ষণে সমস্যা হবে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ১৩ লাখ টন ধান-চাল তো এক দিনেই কিনছি না। প্রতিদিনই গোডাউন থেকে কমছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*